1. sylhetbbc24@gmail.com : admin : Web Developer
  2. marufmunna29@gmail.com : admin1 : maruf khan munna
  3. faisalyounus1990@gmail.com : Abu Faisal Mohammad Younus : Abu Faisal Mohammad Younus
বৃহস্পতিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০৫:৩৭ অপরাহ্ন

হবিগঞ্জে ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারে’র ১০ বছর পূর্তি

  • সিলেট বিবিসি ২৪ ডট কম : নভেম্বর, ১১, ২০২০, ৩:০১ pm

  • সারাদেশের ন্যায় হবিগঞ্জ জেলায়ও হবিগঞ্জ সদর, মাধবপুর ও চুনারুঘাট উপজেলার উদ্যোক্তা ফোরামের যৌথ উদ্যোগে বর্ণাঢ্য আয়োজনে পালিত হয়েছে ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারের ১০ বছর পূর্তি পালিত হয়েছে ।

    বুধবার (১১ নভেম্বর) সকাল সাড়ে ১০টা থেকে দিনব্যাপী উদ্যোক্তা জাহাঙ্গীর আলম সভাপতিত্বে মুক্তিযুদ্ধের প্রথম সদর দপ্তর মাধবপুর উপজেলার তেলিয়াপাড়া স্মৃতিসৌধের সামনে উদ্যোক্তা মিলন মেলা অনুষ্ঠিত হয়।

    উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন মাধবপুর প্রেসক্লাব সভাপতি মহিউদ্দিন আহমেদ, বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন চুনারুঘাট ইউডিসি উদ্যোক্তা ফোরামের সভাপতি এমরান আহমেদ, সেক্রেটারি আব্দাল মিয়া, মাধবপুর উপজেলার যুগান্তর প্রতিনিধি রুকন উদ্দিন লস্কর, সাংবাদিক আয়ূব খান, সাংবাদিক সানায়োল হক চৌধুরী শামীম, সাংবাদিক আলমগীর কবির, সাংবাদিক তোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী, এস এম গউস, ব্যাংক এশিয়া অফিসার শালমান শাহ।

    এ ছাড়াও অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন হবিগঞ্জ সদর, মাধবপুর ও চুনারুঘাট উপজেলার ইউডিসি’র সকল উদ্যোক্তারা ।

    উল্লেখ্য, ইউনিয়ন পরিষদ দেশের প্রাচীনতম স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠান। এটি তৃণমূল পর্যায়ে জনগণের সবচেয়ে কাছের সরকার। ইউনিয়ন পরিষদে স্থাপিত তথ্য-প্রযুক্তিভিত্তিক কেন্দ্র ‘ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টার’ পরিষদকে নতুন মাত্রা প্রদান করেছে। ২০১০ সালের ১১ নভেম্বর প্রধানমন্ত্রী তাঁর কার্যালয় থেকে এবং নিউজিল্যান্ডের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও জাতিসংঘ উন্নয়ন কর্মসূচি (ইউএনডিপি)’র প্রশাসক মিস হেলেন ক্লার্ক ভোলা জেলার চর কুকরিমুকরি ইউনিয়ন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সারাদেশের সকল ইউনিয়ন পরিষদে একটি করে ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টার (ইউডিসি) একযোগে উদ্বোধন করেন।

    ইউডিসি’র মূল লক্ষ্য ছিল, ইউনিয়ন পরিষদকে একটি শক্তিশালী প্রতিষ্ঠানে পরিণত করা, যাতে এই সব প্রতিষ্ঠান ২০২১ সালের মধ্যে একটি তথ্য ও জ্ঞান-ভিত্তিক দেশ প্রতিষ্ঠায় যথাযথ ভূমিকা রাখতে পারে। পাশাপাশি এই সব কেন্দ্র সরকারি-বেসরকারি তথ্য ও সেবাসমূহ জনগণের কাছাকাছি নিয়ে যেতে, প্রযুক্তি বিভেদ দূর করতে ও সকল নাগরিককে তথ্য প্রবাহের আধুনিক ব্যবস্থার সাথে যুক্ত করতে সুদূর প্রসারী ভূমিকা রাখতে পারে ।‘জনগণের দোরগোড়ায় সেবা’ (Service at Doorsteps)-এ ম্লোগানকে সামনে রেখে ইউডিসির যাত্রা শুরু হয়েছিল।

    সিলেটবিবিসি/রাকিব/ডেস্ক/অক্টোবর১১,২০২০

     

    facebook comments












    © All rights reserved © 2020 sylhetbbc24.com
    পোর্টাল বাস্তবায়নে : বিডি আইটি ফ্যাক্টরী লিঃ