1. sylhetbbc24@gmail.com : admin : Web Developer
  2. marufmunna29@gmail.com : admin1 : maruf khan munna
  3. faisalyounus1990@gmail.com : Abu Faisal Mohammad Younus : Abu Faisal Mohammad Younus
রবিবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০৯:৪২ অপরাহ্ন

বদলে গেছে শাহজালাল সারকারখানা আবাসিক এলাকার চিত্র

  • সিলেট বিবিসি ২৪ ডট কম : সেপ্টেম্বর, ১৭, ২০২০, ১২:৩১ pm

  • মাহমুদুল হাসান চৌধুরী অভি, ফেঞ্চুগঞ্জ :: দেশের সারের চাহিদা মেটাতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে সারকারখানা গুলো। সিলেটের ফেঞ্চুগঞ্জে নির্মিত নতুন শাহজালাল সারকারখানা সারের চাহিদা মেটাতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে।

    সারের চাহিদা মেটাতে নিরলস পরিশ্রম করে সারকারখানার শ্রমিকরা কেমন আছেন? তারা কিভাবে বসবাস করছেন? তা দেখার জন্য সরেজমিনে ঘুরে দেখা যায় বিভিন্ন মানউন্নয়নের চিত্র।

    ১৭ সেপ্টেম্বর (বৃহস্পতিবার) সারকারখানা এলাকা ঘুরে দেখা যায়, আবাসিক এলাকার নতুন আরসিসি রাস্তা বেশ চমৎকার। পুরোনো জরাজীর্ণ রাস্তা সম্পূর্ণ নতুন রূপে তৈরি করা হয়েছে৷ যেখানে সিএনজি বা রিক্সা চলাচল ব্যাহত হত সেখানে ফোর হুইল যানবাহন গুলো নিরাপদে চলাচল করতে পারছে। আবাসিক এলাকার ভবনগুলো পরিদর্শন করে দেখা যায় পুরোনো পাকিস্তান আমলের টিনশেড বাসা গুলো ভেঙ্গে তৈরি করা হয়েছে আধুনিক বিল্ডিং। যেখানে নিশ্চিত করা হয়েছে সবধরনের আবাসিক সুবিধা৷

    কারখানা সূত্রে জানা যায়, বাংলাদেশ ক্যামিকেল ইন্ড্রাস্টিয়াল করপোরেশনের অর্থায়নে, স্থানীয় সংসদ সদস্য মাহমুদ উস সামাদের ততত্ত্বাবধানে, সারকারখানার প্রশাসন কর্মকমর্তা, সিবিএ এবং শ্রমিকদের সহযোগীতায় নাগরিক সুবিধা নিশ্চিত করতে সবধরনের পদক্ষেপ কার্যকর করা হচ্ছে।

    সরেজমিনে দেখা যায়, নির্মাণাধীন নতুন বাজার, ব্যাংক এবং পোস্ট অফিসের কাজ প্রায় শেষের পথে। ইতোমধ্যে আবাসিক স্কুল এন্ড কলেজের কাজের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করা হয়েছে।

    সারকারখানায় কর্মরত কয়েকজন শ্রমিক জানান, ইতোমধ্যে আমরা নতুন বাসায় (হাউজ বিল্ডিং) এ বাসা পেয়েছি। মুটামুটি আগের চেয়ে অবস্থা অনেক ভালো।

    সারকারখানায় কাজ করা মাস্টার অপারেটর আব্দুস সালাম জানান, ২০১০ সালের পর পুরোনো সারকারখানা ডিজেবল হওয়ার পরে নতুন কারখানার কাজ শুরু হয়েছে। এজন্য মাহমুদ উস সামাদ এম পি, স্থানীয় গগণ্যমান্য, ব্যাক্তিবর্গ, কারখানার প্রশাসন, সিবিএ নেতারা অনেক ভূমিকা পালন করেছেন।মুটামুটি আমাদের এলাকার জরাজীর্ণ ভাব কেটেছে। তবে আরও অনেক কাজ বাকী আছে যেগুলো দ্রুত করতে হবে নাগরিক সেবা নিশ্চিত করতে।

    সারকারখানার মাঠে কথা হয় স্থানীয় একজন ফুটবল খেলোয়াড়ের সাথে। তিনি জানান, ইতোমধ্যে খেলার মাঠ, মাঠের প্যাভিলিয়ন সুন্দর নতুন রূপে তৈরি করা হয়েছে।

    তিনি জানান, মাহমুদ উস সামাদ স্পোর্টিং ক্লাবের কার্যক্রম শুরু হবার পর অনেকেই ক্রীড়া সংক্রান্ত ব্যাপারে বিশেষ আগ্রহ নিয়ে কাজ করছেন৷

    মান্নান ভূইয়া নামক একজন শ্রমিক বলেন, আমাদের বাচ্চারা রাস্তার কারণে স্কুলে যেতে বেশ ঝামেলা পোহাতো। বিশেষ করে আবাসিক এলাকার বাহির থেকে যেসব ছাত্রছাত্রী স্কুলে আসতো তাদের সমস্যার সম্মুখীন হতে হতো। এখন এই সমস্যা লাঘব হয়েছে।

    সিলেটবিবিসি/ ১৭ সেপ্টেম্বর ২০/ রাকিব

    facebook comments












    © All rights reserved © 2020 sylhetbbc24.com
    পোর্টাল বাস্তবায়নে : বিডি আইটি ফ্যাক্টরী লিঃ