1. sylhetbbc24@gmail.com : admin : Web Developer
  2. marufmunna29@gmail.com : admin1 : maruf khan munna
  3. faisalyounus1990@gmail.com : Abu Faisal Mohammad Younus : Abu Faisal Mohammad Younus
বুধবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২১, ০৪:২৭ অপরাহ্ন

ধর্ষণে ৫০ বছরের কারাদণ্ড চান জাফরুল্লাহ

  • সিলেট বিবিসি ২৪ ডট কম : অক্টোবর, ১০, ২০২০, ১১:৩৩ am

  • ফাঁসি নয়, ধর্ষণের শাস্তি ৫০ বছরের কারাদণ্ড চান গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্ট্রি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী। শনিবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে ভাসানী অনুসারী পরিষদ আয়োজিত এক মানববন্ধনে তিনি এই দাবি জানান।

    ‘নারীর উপর পৈশাচিক নির্যাতন বন্ধ কর, নারী ধর্ষকদের সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করার দাবিতে এবং ভারতীয় আগ্রাসনের প্রতিবাদকারী বুয়েটের মেধাবী ছাত্র আবরার ফাহাদের স্মরণে ‘আট স্তম্ভ‘ ভেঙ্গে ফেলার প্রতিবাদে’ এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। পরে প্রেসক্লাব থেকে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার পর্যন্ত পদযাত্রা অনুষ্ঠিত হয়।

    নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে নারীকে ধর্ষণ ও বিবস্ত্র করে নির্যাতন এবং সিলেট এমসি কলেজে স্বামীকে আটকে রেখে গৃহবধূকে ধর্ষণের ঘটনার প্রতিবাদে ও ধর্ষকদের শাস্তি মৃত্যুদণ্ড করার দাবিতে সারাদেশে আন্দোলন করছে বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ। আর এই লাগাতার দাবির মুখে মৃত্যুদণ্ডের বিধান রেখে সংশ্লিষ্ট আইনটি সংশোধনের উদ্যোগ নেয়ার কথা জানিয়েছে সরকার।

    এমন সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করে জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, ‘আসামির ফাঁসি হওয়ার বিষয়টি ‘ধাপ্পাবাজি’। ধর্ষণের মতো এতো বড় কাজ যারা করে, তাদের দুই মিনিটেই ফাঁসি! দুই মিনিটেই সবশেষ। আপনারা ফাঁসির দাবিতে আন্দোলন না করে ৫০ বছর কারাদণ্ডের দাবি জানান। তবে সেটা সম্রাটের (ইসমাইল হোসেন চৌধুরী সম্রাট) মতো কারাদণ্ড যেন না হয়। কেননা পিজি হাসপাতালে ১১ মাস তারা ভিআইপি কেবিনে কাটায়। এ ধরনের ছলনা নয়।’

    জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, ‘আজকে আপনারা যদি মনে করেন এ আন্দোলন থেমে যাবে, এটা ভুল। থামলেও আপনি শান্তি পাবেন না। বঙ্গবন্ধু কবরে বসে শান্তি পাবেন না। উনি নিশ্চয়ই দুঃখ পাচ্ছেন আজকের বাংলাদেশ দেখে। আজকে আমাদের সবার দায়িত্ব আপনাকে (প্রধানমন্ত্রী) অনুরোধ করা। আপনি রাস্তায় নেমে আসেন নিজ চোখে দেখেন। ডিজিটাল বাদ দিয়ে আসেন এখানে, আসেন আমাদের সামনে এসে দাঁড়ান। তবেই জাতি বুঝবে, আপনি এ জাতীয় সমস্যা সমাধান করতে চান।’

    গণস্বাস্থ্যের এই প্রতিষ্ঠাতা আরো বলেন, ‘আপনাদের বাড়ি ও প্রেসিডেন্ট হাউজ থেকে পুলিশ প্রত্যাহার করেন। আপনাদের জীবনের এতো ভয় কিসের? ভয় যদি থাকে তবে সামরিক বাহিনী দিয়ে পাহারা দেয়ান। এই পুলিশ বাহিনীকে তার দেশের শৃঙ্খলা নিয়োগে রাখেন। প্রতিটি বাসে ও রেলপথে পুলিশ দেন। রাস্তাঘাটে পুলিশ দেন। প্রতিটি গার্লস স্কুলে মেয়েদের কারাতে শেখান। ছেলেমেয়েদের বিদ্যালয়ে খেলাধুলার পাশাপাশি শিক্ষার পরিবর্তন আনেন। নয়তো একদিন দুইদিনের আন্দোলনে সরকারের পতন হবে।’

    ‘প্রধানমন্ত্রীকে ভারতীয় লোকদের দ্বারা প্ররোচিত না হওয়ার আহ্বান’ জানিয়ে তিনি বলেন, ‘আপনি যদি সত্যিকার অর্থে বঙ্গবন্ধুকে শ্রদ্ধা করেন, তার কন্যা হিসেবে আপনার কাজ হবে একটা সত্যিকার নির্বাচন দেয়া। মধ্যবর্তী নির্বাচন দেয়া। নয়তো ইতিহাস আপনাকে ক্ষমা করবে না। আপনি অনুগ্রহ করে ভারতীয়দের দ্বারা প্ররোচিত হয়ে চলাফেরা করবেন না।’

    ভাসানী অনুসারী পরিষদের মহাসচিব শেখ রফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন এবং পদযাত্রায় অংশগ্রহণ করেন ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী, প্রফেসর ড. আসিফ নজরুল, প্রফেসর ড. দিলারা চৌধুরী, মুক্তিযোদ্ধা নঈম জাহাঙ্গীর, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রেস উপদেষ্টা আলম মিন্টু, গণদলের চেয়ারম্যান গোলাম মাওলা চৌধুরী, মুক্তিযোদ্ধা ফরিদউদ্দিন প্রমুখ। সভা পরিচালনা করেন ভাসানী অনুসারী পরিষদের প্রেসিডিয়াম মেম্বার আক্তার হোসেন।

    সিলেটবিবিসি/রাকিব/ডেস্ক/অক্টোবর১০,২০২০

    facebook comments












    © All rights reserved © 2020 sylhetbbc24.com
    পোর্টাল বাস্তবায়নে : বিডি আইটি ফ্যাক্টরী লিঃ