1. sylhetbbc24@gmail.com : admin : Web Developer
  2. marufmunna29@gmail.com : admin1 : maruf khan munna
  3. faisalyounus1990@gmail.com : Abu Faisal Mohammad Younus : Abu Faisal Mohammad Younus
মঙ্গলবার, ১৩ এপ্রিল ২০২১, ০১:৪৫ পূর্বাহ্ন

দুই শিক্ষার্থীকে নিয়মিত বলাৎকার করতেন মাদ্রাসা শিক্ষক

  • সিলেট বিবিসি ২৪ ডট কম : নভেম্বর, ২৯, ২০২০, ৫:১৫ am

  • ময়মনসিংহের গৌরীপুরে শিক্ষার্থীদের বলাৎকারের অভিযোগে উঠেছে এক শিক্ষকের বিরুদ্ধে। পুলিশ জানিয়েছে, মাদ্রাসার ক্ষুদে শিক্ষার্থীদের ওপর পাশবিক নির্যাতন চালাতেন শিক্ষক।

    এক ছাত্রের বাবার অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে শুক্রবার (২৭ নভেম্বর) রাতে মো: বাকী বিল্লাহ মানিক (৩৮) নামে ঐ শিক্ষককে গ্রেফতার করে পুলিশ। পরে শনিবার (২৮ নভেম্বর) দুপুরে ঐ শিক্ষককে ময়মনসিংহ আদালতে সোপর্দ করা হয়।

    উপজেলার সহনাটি ইউনিয়নের করফুলনেছা নূরানী ও হাফিজিয়া মাদরাসায় নূরানী শাখার প্রধান শিক্ষক হিসাবে কর্মরত মো. বাকী বিল্লাহ মানিক। তিনি একই ইউনিয়নের মানিকরাজ গ্রামের আজিম উদ্দিন মাস্টারের পালিত ছেলে। কিন্তু ঐ শিক্ষক মাদ্রাসায় শিশুদের প্রায়ই বলৎকার করতেন বলে এমনটা অভিযোগ উঠেছে।

    স্থানীয়রা জানায়, গত ১৫ নভেম্বর সকালে প্রধান শিক্ষক মানিক মাদ্রাসার পাঠদান কক্ষের ব্ল্যাকবোর্ডের পেছনে নিয়ে ৯ বছরের এক ছাত্রকে বলাৎকার করেন। এরপর আরো কয়েকদফা পাঠদান কক্ষেই ওই ছাত্রকে বলাৎকার করে তিনি। এ ঘটনার পর থেকে ওই ছাত্র মাদ্রাসায় আসা-যাওয়া বন্ধ করে দেয়। গত ২৫ নভেম্বর ওই ছাত্রকে তার বাবা বাড়ি থেকে ফের মাদ্রাসায় দিয়ে আসলেও সে বাড়ি ফিরে যায়। তার বাবা বাড়ি ফেরার কারণ জানতে চাইলে সে বলাৎকারের ঘটনা পরিবারকে জানায়। এঘটনায় নির্যাতিত ছাত্রের বাবা শুক্রবার রাতে গৌরীপুর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেন ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে। পুলিশ ঐদিন রাতেই অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত শিক্ষককে গ্রেফতার করে।

    পুলিশ জানায়, গ্রেফতারের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, শুধু ওই শিক্ষার্থীই নয়, অন্য শিক্ষার্থীকেও নিয়মিত বলৎকার করতেন শিক্ষক মো: বাকী বিল্লাহ মানিক। ঐ অবস্থায় শিক্ষার্থীর বাবার অভিযোগটি মামলা হিসেবে নথিভুক্ত করে শনিবার অভিযুক্ত শিক্ষককে ময়মনসিংহ আদালতে সোপর্দ করা হয়।

    গৌরীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো: বোরহান উদ্দিন বলেন, মাদ্রাসার ২ শিক্ষার্থীকে নিয়মিত বলাৎকার করতেন ঐ শিক্ষক। অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে তাকে গ্রেফতার করা হয়। এ ঘটনায় মামলা শেষে শনিবার আদালতের মাধ্যমে অভিযুক্তকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

    সিলেটবিবিসি/রাকিব/ডেস্ক/নভেম্বর ২৯,২০২০

     

    facebook comments












    © All rights reserved © 2020 sylhetbbc24.com
    পোর্টাল বাস্তবায়নে : বিডি আইটি ফ্যাক্টরী লিঃ