1. sylhetbbc24@gmail.com : admin : Web Developer
  2. marufmunna29@gmail.com : admin1 : maruf khan munna
  3. faisalyounus1990@gmail.com : Abu Faisal Mohammad Younus : Abu Faisal Mohammad Younus
রবিবার, ১১ এপ্রিল ২০২১, ০৬:৪০ পূর্বাহ্ন

কামরান চত্বর: জাকিরের প্রস্তাব, মেয়র আরিফের ‘ঘোষণা’, পররাষ্ট্রমন্ত্রীর ‘আশ্বাস’

  • সিলেট বিবিসি ২৪ ডট কম : জুন, ২০, ২০২০, ২:৫৮ pm

  • মারুফ খান মুন্না :: ‘মেয়র’ কামরান। সাবেক হয়েছেন প্রায় সাতবছর আগে। তারপরেও পরিচিত মেয়র নামেই। পরপর দু’বার মেয়র পদে নির্বাচিত হওয়ার পর পরের দু’বার ভোটের রাজনীতিতে হেরে হারিয়েছিলেন  ‘মেয়র’ পদটি। কিন্তু তাতে কী? জনতার কামরান  মন্ত্রী থেকে এমপি, নেতা থেকে কর্মী, সাধারণ মানুষ থেকে রিকশাওয়ালা কিংবা পান দোকানী সবার কাছেই তিনি ‘মেয়র কামরান’ নামেই পরিচিত ছিলেন। জনতার কামরানের মৃত্যুর পরেও তার স্মরণে সিলেটের গুরুত্বপুর্ণ স্থাপনা নির্মাণ কিংবা নামকরণের দাবীতে উত্তাল সিলেটের সোশ্যাল মিডিয়াপাড়া।

    মেয়র কামরানের নামে স্কুল, কলেজ কিংবা হাসপাতাল নির্মাণ কিংবা অন্য যেকোন গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা বা প্রতিষ্ঠান নামকরণের দাবীতে সোচ্চার সিলেটবাসী। কেউবা নগর ভবনের নাম ‘কামরান ভবন’ করার দাবী জানাচ্ছেন। আবার অনেকেই সিলেটের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ রাস্তা- চৌহাট্টা পয়েন্ট, জিন্দাবাজার পয়েন্ট কিংবা  সিলেট সিটি করপোরেশন তথা নগর ভবনের সামনের পয়েন্টকে ‘কামরান চত্বর’ করার দাবী জানাচ্ছেন। দল-মত নির্বিশেষে সাধারণ মানুষ এবং বিভিন্ন পেশাজীবী মানুষের এমন দাবী দিন দিন তীব্র থেকে তীব্রতর হচ্ছে।

    সবকিছু ছাপিয়ে সিলেটে গত তিন-চার দিন ধরে  নগর ভবনের সামনের পয়েন্টকে ‘কামরান চত্বর’ হিসেবে ঘোষণা দিয়েছেন মেয়র আরিফ- এমন ভুয়া খবরে সয়লাব সিলেটের অনেকের ফেসবুকের টাইমলাইন। অনেকে সিসিক ভবনের সামনের পয়েন্ট কামরান চত্বর হিসেবে ঘোষিত হওয়ায় এবং এমন প্রস্তাব উত্থাপন করায় সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক জাকির হোসেনকে এবং মেয়র আরিফের ঘোষণায় আশ্বাস প্রদানে সিলেট-১ আসনের সাংসদ ও পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানাচ্ছেন।

    তবে, দায়িত্বশীলদের সাথে কথা বলে জানা যায়, গত ১৬ই জুন সিলেটের একটি অনলাইন পোর্টালের লাইভ অনুষ্ঠানে অধ্যাপক জাকির হোসেন সিসিক ভবনের সামনের পয়েন্ট কামরান চত্বর করার প্রস্তাব করেন। এ বিষয়ে তিনি এবং অনুষ্টানটির সঞ্চালক  সিলেট-১ আসনের সংসদ সদস্য ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেনের  এবং সিটি কর্পোরেশনের বর্তমান মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীর দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।

    জবাবে আরিফুল হক চৌধুরী বলেন, কামরান স্মরণে তিনি ‘একটা কিছু’ করবেন। সিসিকের পরবর্তী মিটিংয়ে তিনি শুধু ‘পয়েন্ট নয়’, কামরানকে আরো ভালো করে সম্মান দেখাতে এবং নতুন প্রজন্মের কাছে তুলে ধরতে সাধারণ সভা ডেকে নিয়ম-কানুন মেনে কিছু একটা করবেন। এটা তিনি তার বক্তব্যের প্রথমেই ঘোষণা করেছেন। এ বিষয়ে নতুন করে প্রস্তাবের কোন সুযোগ নেই বলে জানান তিনি।

    তবে, সিলেট-১ আসনের সংসদ সদস্য ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেন অধ্যাপক জাকিরের প্রস্তাব এবং মেয়র আরিফের কামরান স্মরণে ‘কিছু একটা’ করার ঘোষণায় বলেন, কোন একটি প্রতিষ্টানের নাম কিংবা এই যে প্রস্তাব উত্থাপিত হয়েছে বা যেকোন চত্বরের নাম যাই হোক কামরানের নামে যেকোন স্থাপনা নির্মাণের উদ্যোগ নেওয়া হলে ‘ইউ হ্যাভ মাই ফুল সাপোর্ট’।

    সিলেটবাসী সিলেটের সাংসদ এবং পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্দুল মোমেনের এমন আশ্বাস পাওয়ার পর আশায় বুক বেঁধেছেন। দ্রুতই সিলেটের মাটি ও মানুষের নেতা ‘জনতার নেতা’ জননেতা  ‘মেয়র’ কামরানের স্মৃতি স্মরণে কোন স্থাপনা নির্মাণ কিংবা চত্বরের নামকরণের আনুষ্ঠানিক ঘোষণা শুনতে চান তারা। কথার ফুলঝুরি নয় সিসিক মেয়র আরিফুল হক সহ দ্বায়িত্বশীলদের কাছে আনুষ্ঠানিক ঘোষণা ও বাস্তবায়ন চান সিলেটের সচেতন সমাজ।

    উল্লেখ্য, সিলেট সিটি করপোরেশনের সাবেক মেয়র, সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের নির্বাহী সদস্য বদর উদ্দিন আহমদ কামরান করোনাক্রান্ত হয়ে ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে মারা যান।

    সিলেটবিবিসি২৪ডটকম/২০ জুন ২০২০/মারুফ মুন্না/

    facebook comments












    © All rights reserved © 2020 sylhetbbc24.com
    পোর্টাল বাস্তবায়নে : বিডি আইটি ফ্যাক্টরী লিঃ