1. sylhetbbc24@gmail.com : admin : Web Developer
  2. marufmunna29@gmail.com : admin1 : maruf khan munna
  3. faisalyounus1990@gmail.com : Abu Faisal Mohammad Younus : Abu Faisal Mohammad Younus
বৃহস্পতিবার, ০৬ মে ২০২১, ১১:৫২ পূর্বাহ্ন

এমসি কলেজে গণধর্ষণ : সাইফুর ও অর্জুন গ্রেপ্তার

  • সিলেট বিবিসি ২৪ ডট কম : সেপ্টেম্বর, ২৭, ২০২০, ৬:২৭ am

  • নিজেস্ব প্রতিবেদক :: সিলেটের মুরালি চাঁদ (এমসি) কলেজ ছাত্রাবাসে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনায় করা মামলার প্রধান আসামি সাইফুর রহমানকে সুনামগঞ্জের ছাতক উপজেলা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এবং মামলার চার নম্বর আসামী অর্জুন লস্করকে মাধবপুর উপজেলার মনতলা সীমান্ত এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

    আজ রোববার(২৭ সেপ্টেম্বর) সকালে তাকে গ্রেপ্তার করা হয় বলে নিশ্চিত করেছেন সুনামগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (এএসপি) হায়াতুন্নবী। অর্জুন লস্করকে গ্রেপ্তার সতত্যা নিশ্চিত করেছেন মাধবপুর থানার ওসি (তদন্ত) গোলাম দস্তগির।

    এই পুলিশ কর্মকর্তা জানান, উপজেলার সীমান্তবর্তী মনতলা এলাকার দূর্লভ পুর গ্রাম থেকে সিলেটের একদল ডিবি পুলিশ অর্জুনকে গ্রেপ্তার করে। এরপরই তাকে সিলেট নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

    গ্রেপ্তার সাইফুর ও অর্জুন সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক রণজিৎ সরকার বলয়ের অনুসারী সিলেট জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সদস্য নাজমুল ইসলাম সমর্থিত ছাত্রলীগ কর্মী। সে বালাগঞ্জ উপজেলার চান্দাই পাড়া গ্রামের বাসিন্দা তাহমিদ মিয়ার পুত্র। আর অর্জুন জকিগঞ্জ উপজেলার আটগ্রাম গ্রামের কানু লস্করের পুত্র।

    এর আগে, গত ২৫ সেপ্টেম্বর রাত ৮টা নাগাদ কলেজের ফটকের সামনে বেড়াতে যাওয়া এক তরুণী ও তার স্বামীকে জোরপূর্বক কলেজের ছাত্রাবাসে নিয়ে স্বামীকে আটকে রেখে স্ত্রীকে ধর্ষণ করেন একদল তরুণ। এ ঘটনায় সেদিন রাতেই ধর্ষণের শিকার তরুণীর স্বামী বাদী হয়ে সিলেটের শাহ পরান থানায় ছয় জনের নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাত তিন জনকে সহযোগী হিসেবে উল্লেখ করে একটি মামলা দায়ের করেন।

    অভিযুক্তরা হলেন সাইফুর রহমান (২৮), শাহ মাহবুবুর রহমান রনি (২৫), অর্জুন লঙ্কর (২৫), মাহফুজুর রহমান মাসুম (২৫), রবিউল ইসলাম (২৫) ও তারেকুল ইসলাম (২৮)।

    গ্রেপ্তার হওয়া সাইফুর রহমান সিলেটের বালাগঞ্জ উপজেলার চান্দাইপাড়া গ্রামের বাসিন্দা। এমসি কলেজের সাবেক এ শিক্ষার্থী কলেজের তত্ত্বাবধায়কের বাংলো দখল করে সেখানে বসবাস করতেন বলে জানিয়েছে কলেজ কর্তৃপক্ষ।

    ২৫ সেপ্টেম্বর রাতেই পুলিশ সেই বাংলোয় অভিযান চালালে সেখান থেকে একটি পিস্তল, চারটি রামদা এবং বেশ কিছু লোহার রড উদ্ধার হয়। অস্ত্র উদ্ধারের এ ঘটনাতেও সাইফুরকে আসামি করে সেদিন রাতেই অস্ত্র আইনে একটি মামলা দায়ের করে পুলিশ।

    সিলেটবিবিসি/ ২৭ সেপ্টেম্বর ২০/ রাকিব

    facebook comments












    © All rights reserved © 2020 sylhetbbc24.com
    পোর্টাল বাস্তবায়নে : বিডি আইটি ফ্যাক্টরী লিঃ